সর্বশেষ
Home / আন্তর্জাতিক / ভারত আমাদের দুঃসময়ের বন্ধু: ওবায়দুল

ভারত আমাদের দুঃসময়ের বন্ধু: ওবায়দুল

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘ভারত আমাদের দুঃসময়ের বন্ধু, বাংলাদেশের স্বার্থেই এই বন্ধুত্ব থাকবে।’

রোববার বিকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে জাতীয় শ্রমিক লীগের সমাবেশে তিনি একথা বলেন।

এসময় ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ভারতের সঙ্গে কোনো চুক্তি হলে জনগণের স্বার্থে, জাতীয় স্বার্থে হবে। জীবন থাকতে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা জনগণের স্বার্থের বাইরে কাজ করবেন না, জনগণের স্বার্থের বাইরে কোনো চুক্তিও করবেন না।’

তিনি বলেন, ‘বিএনপি নালিশের ভাঙা রেকর্ড বাজায়। এখন প্রতিদিন একটি ভাঙা রেকর্ড বাজাচ্ছে। সেটা হল ভারত-বিদ্বেষ।’

মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী এখনো ভারত যাননি। যাওয়ার আলোচনা চলছে, আনুষ্ঠানিক ঘোষণা এখনো আসেনি। তার আগেই ওই ভাঙা রেকর্ড এখন বাজানো শুরু হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের বর্তমান সম্পর্ক ইতিবাচক ও গঠনমূলক। কোনো চুক্তি হলে পারস্পরিক স্বার্থে ও জাতীয় স্বার্থেই তা হবে।’

এসময় আওয়ামী লীগ ভারত প্রীতিতেও নেই, ভীতিতেও নেই বলেও মন্তব্য করেন দলটির সাধারণ সম্পাদক।

২০০১ সালের নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘ভারতের নির্বাচনের সময় আপনারা (বিএনপি) ফুল নিয়ে দূতাবাসে চলে গেলেন। মোদি আসলো, তাকিয়ে ছিলেন। কিন্তু শেখ হাসিনা আর মোদি দুই দেশের জনগণের স্বার্থে ঐতিহাসিক সীমান্ত চুক্তি করলেন।’

‘এই সম্পর্ক থাকবে, ফাটল ধরানোর চেষ্টা করে লাভ নেই। কারণ, এ সম্পর্ক জনগণের স্বার্থে, ক্ষমতার জন্য নয়। ক্ষমতার স্বার্থে (জাতীয় স্বার্থ) বিকানোর ইচ্ছে শেখ হাসিনা বা আওয়ামী লীগের নেই’ যোগ করেন ওবায়দুল কাদের।

বিএনপি ক্ষমতার জন্য বিদেশের দিকে তাকিয়ে থাকে দাবি করে তিনি বলেন, ‘ক্ষমতার জন্য বিদেশের দিকে তাকিয়ে থাকার রেকর্ড বিএনপির আছে, আওয়ামী লীগের নেই। এসব নালিশের ভাঙা রেকর্ড ও বিদেশীদের কাছে ধরনা দেয়া বন্ধ করুন।’

বিএনপির সমালোচনা করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘নির্বাচন নিয়ে তারা ভাঙা রেকর্ড বাজাচ্ছে, আবার তলে তলে প্রস্তুতিও নিচ্ছে। গাধা পানি ঘোলা করে খায়। বিএনপিও পানি ঘোলা করে খাবে।’

তিনি বলেন, ‘কমিশনে আপনাদের একজন আছে, আমাদেরও একজন। আপনারা তো আজিজ মার্কা নির্বাচন চেয়েছিলেন। তখন তো আমাদের একজনও ছিল না। এরপরও আমরা নির্বাচনে গিয়েছিলাম।’

এসময় বাংলাদেশের গার্মেন্ট শিল্পের বিরুদ্ধে দেশী-বিদেশী ষড়যন্ত্র চলছে অভিযোগ করে মন্ত্রী বলেন, ‘ধৈর্য ধরুন, কারও উসকানিতে বিভ্রান্ত হবেন না। অহেতুক বিভ্রান্তির ফাঁদে পা দেবেন না।’

সম্প্রতি বাস শ্রমিকদের ধর্মঘটের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘শ্রমিক নয়, অথচ শ্রমিকদের নেতা। নেতাগিরি করলে আগে শ্রমিক হতে হবে। পরিবহনেও অনেক নেতা আছে যারা শ্রমিক নয়। তাদের অনেকেই আবার পরিবহন শ্রমিকদের নেতৃত্ব দেন।’

Test

আরো দেখুন

একে এম রুহুল আমিন বাবলু,নয়াপল্টন দলীয় কার্যালয়ের সামনে কয়েক হাজার বিএনপি নেতাকর্মী নিয়ে মনোনয়ন ফর্ম জমা’দেন

শুক্রবার দুপুরে সরেজমিনে দেখা গেছে, একে এম রুহুল আমিন বাবলু,নয়াপল্টন দলীয় কার্যালয়ের সামনে কয়েক হাজার …

Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com